ফুলশয্যার রাতে সে ক্স করে না ৩৮% ভারতীয়-জানুন

এখন যদি কেউ আপনাকে বলে যে একটা অজানা, অচেনা লোকের সঙ্গে এক বিছানায় রাত কাটাতে হবে আপনাকে। কী অস্বস্তি লাগবে না আপনার? কিন্তু ভাবুন তো শুধু রাত কাটানোই নয়, একটা সময় ছিল যখন এক সম্পূর্ণ অচেনা মানুষের সঙ্গে বিয়ে দেওয়া হত আপনারই বয়সের কোনও মেয়ে বা মহিলাকে। সেই সম্পূর্ণ ধাঁধাময় মানুষটির সঙ্গে বিয়ের রাতে মিলিতও হতো তাঁরা।

কিন্তু বর্তমানে সময় অনেক পালটে গিয়েছে, অ্যারেঞ্জ ম্যারেজের ফাঁদ থেকে মেয়েরা আজ অনেকটাই মুক্ত। কিন্তু তবু আজও আমাদের এই সমাজেই অনেক উঁচু-নীচু জাতপাতের বাঁধাধরা ছক আছে যেখানে আজও মনে করা হয় যে, ১৮ বছর মানেই একটি মেয়ের বিয়ের বয়স হয়ে গিয়েছে। ফলে দাও তাকে বাপের কাকার বয়সী একজনের সঙ্গে বিয়ে দিয়ে। আর যদি পাত্র সরকারি চাকুরে হয় তবে তো কথাই নেই।

Loading...

কিন্ত এই সবকিছুর উর্ধ্বে যে কথাটা বলার জন্য এত ভনিতা। তা হল জানেন কী কতজন ভারতীর নবদম্পতি বিয়ের রাতেই মিলিত হন?

সমীক্ষা বলছে ৬৩ শতাংশ ভারতীয় দম্পতি যারা অ্যারেঞ্জ ম্যারেজ করেন তাঁরা বিয়ের রাতেই যৌন সংগমে লিপ্ত হন। কিন্তু অবাক হবেন এটা জেনে যে, সেই দম্পতিদের মধ্যে বেশির ভাগই বিয়ের আগে পরস্পরকে চেনেন না। কোনও কোনও ক্ষেত্রে বিয়ের মণ্ডপেই হয় প্রথম দেখা। তবে ‘বিয়ের প্রথম রাতেই ছক্কা হাঁকানো’ কী ভুল। সমীক্ষকরা বলছেন, সবার জন্য অবশ্যই ভুল নয়। তবে এটা ভুল হতে পারে দু’ধরনের মানুষদের জন্য, এক যাদের সেক্স সম্পর্কে কোনও প্রকারের ধারনা নেই। আর দুই, যারা বিপরীত দিকের মানুষটির কাছে বেশি কিছু এক্সপেক্ট করেন।

তাঁরা আরও জানিয়েছেন, বিয়েকে কোনও মতেই হালকা ভাবে নেওয়া উচিত নয়। কারণ এই প্রক্রিয়াতে আপনি কেবল শারীরিক ভাবেই কোনও একজনের সঙ্গে মিলিত হচ্ছেন না, মানসিক মিলনও ঘটছে। শরীর না একটা মাধ্যম মাত্র, যার সঙ্গে যাগ থাকে মনের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *