বিয়ের আসরে স্যাড সং গেয়ে ক্রাশকে পটালো যুবক-দেখুন বিস্তারিত

আপনি হয়তো অনেক রোমান্টিক ছবি দেখেছেন আর অনেক ইমোশনাল সিন ও দেখেছেন যেখানে হিরো গান গেয়ে তার প্রেমিকার বিয়ে ভেঙ্গে দিচ্ছে,কিন্তু সেগুলি হয় বানানো গল্প কিন্তু আমি এখন আপনাদের যেটা বলবো সেটা কোনো গল্প নয় এটি একটি সত্যি ঘটনা। ঘটনাটি ঘটেছে ঝাড়খণ্ডে।

জানা গিয়েছে এই বাস্তব গল্পটির হিরোর সাথে মেয়েটির প্রায় ৮ বছরের ভালোবাসা । কিন্তু ৮ বছর সম্পর্ক থাকার পর আস্তে আস্তে বিভিন্ন কারনে তাদের সম্পর্কে ভাঙন ধরে। এই ঘটনার পরই মেয়েটির বিয়ে ঠিক হয়ে যায়।এই খবর পাওয়ার পর যুবকটি অনেকবার মেয়েটির সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে কিন্তু সম্ভব হয়নি।শেষ পর্যন্ত আর কোনো উপায় না পেয়ে যুবক হাজির হয় তার প্রেমিকার বিয়ের আসরে।

তারপর মনের দুক্ষে ও তার কষ্ট ও ভালবাসা কতটা সেটা মেয়েটিকে বোঝানোর জন্য স্যাড সঙ্গ গাওয়া শুরু করে যুবকটি।ওখানে উপস্থিত সকলে জানিয়েছে তাদের মধ্যে ছাড়াছাড়ি হয়ে গেলেও মনের টান কমেনি।আর সেই জন্যই তাদের আবার মিলন ঘটে,যুবকটি স্যাডসঙ্গ গেয়ে তার প্রেমিকাকে আবার ফিরে পেলো। এই ঘটনা যেকোনো গল্প,উপন্যাস কেউ হার মানায় এবং এটাও প্রমান করে প্রকৃত ভালবাসার জয় সর্বত্র।

সেদিন ছিলো মেয়েটির বিয়ের দিন সেই আসরে হঠাত স্যাড সং শুরু করে ছেলেটি; আর তাতেই মন গলে যায় মেয়েটির। সবার মন গলে যায়, ওর সাথে মেয়েটির বিয়ে দিতেও রাজি হয়। বরপক্ষেরও কোনো আপত্তি নেই এই ব্যপারে জানিয়ে দেয়। ভালোবাসার জয় হলো আবার।

তারপর মনের দুক্ষে ও তার কষ্ট ও ভালবাসা কতটা সেটা মেয়েটিকে বোঝানোর জন্য স্যাড সঙ্গ গাওয়া শুরু করে যুবকটি।ওখানে উপস্থিত সকলে জানিয়েছে তাদের মধ্যে ছাড়াছাড়ি হয়ে গেলেও মনের টান কমেনি।আর সেই জন্যই তাদের আবার মিলন ঘটে,যুবকটি স্যাডসঙ্গ গেয়ে তার প্রেমিকাকে আবার ফিরে পেলো। এই ঘটনা যেকোনো গল্প,উপন্যাস কেউ হার মানায় এবং এটাও প্রমান করে প্রকৃত ভালবাসার জয় সর্বত্র।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *