‘বরের পাছায় চুল, ওকে আমি বিয়ে করবো না’ কান্না পাত্রীর ( ভিডিও)

একটি সম্পর্ক পরিপূর্ণতা পায় বিয়ের মাধ্যমে, কখনো প্রেমে বিয়ে বা কখনো পারিবারিক বিয়েতে বিয়ের পর প্রেম; এমন অনেক সম্পর্কই আবার ভেঙে যায়; কিন্তু এমন ঘটনা ঘটেছে বিয়ে বাড়িতে যাতে সকলের কপালে চিন্তার ভাঁজ; বিয়েতে পাত্রীর আপত্তি; কারণ-বরের নাকি পেছনে চুল।

ঘটনাটি ঘটেছে আসামের ডিব্রুগড়ের একটি গ্রামে; এখানে সাধারণত মেয়েদের সাবালিকা হলেই বিয়ে দেয়ার রীতি। তেমনি ভাবে পেশায় ভ্যান চালক রব্বানী মিয়ার বড়ো মেয়ে সাবানার বিয়ে ঠিক হয়েছিলো পাশের গ্রামের আলমের সাথে। নাম আলম হলেও লোমেই বেঁধেছে বিয়েতে বিপত্তি।

বিয়ের দিন বিয়ের আসরেই হঠাৎ সাবানা কান্না জুড়ে দেয়, সে নাকি বিয়ে করতে চায় না। কারণ জিজ্ঞেস করলে সে নাকি বলতে থাকে বরের পাছায় লোম ওকে আমি বিয়ে করবো না। পাত্রীর কথাশুনে সবাই হতবাক-সাথে হোহো করে হাসির রোল ওঠে চারিদিকে। লজ্জায় বর রুমাল চাপা দিয়ে মুখ ঢাকেন।

সাবানা কিভাবে বরের পাছা আগে দেখে ফেলেছে সেটা বলতে চায়নি সাবানা, তবে চুল আছে সে নিশ্চিত ভাবে জানিয়েছে। এ ব্যপারে লজ্জায় আলম কিছু বলতে চায়নি। আলমের যুক্তি না দেখে কেনো সাবানা এমন বলবে? তাকে জিজ্ঞেস করা হয়েছিলো সত্যিই কি এমন আছে? আলম এই নিয়ে মুখ খুলতে চায়নি।

তবে আশেপাশে খবর নিয়ে জানা যাচ্ছে, সাবানার নাকি বয়ফ্রেন্ড আছে। আর সাবানা তাকেই বিয়ে করতে চায়; বাড়ি থেকে আলোমের সাথে বিয়ে সে মানতে পারেনি, তাই নাকি বিয়ে ভাঙতে এমন ফন্দি এঁটেছিল সে। তবে আপাতত ওদের বিয়ে হচ্ছে না। লোম রহস্যটা রহস্যই থেকে গেছে, আলোম প্রমাণ দেখায়নি।

প্রসঙ্গত, প্রতিটি পুরুষেরই পেছনে চুল থাকে, এটা হরমোনের প্রভাব। দোষের কিছু নয়। কিন্তু অমন একটা মুহুর্তে সবার সামনে গোপন জিনিস নিয়ে এমন কথা শোনায় লজ্জা পেয়েছে লাজুক আলম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *