TikTok বন্ধের আড়াইমাস পর বেরোলো ঘর থেকে, প্যান্ট খুলে নুনু আছে কিনা চেক করলো বন্ধুরা!

Tiktok সোশ্যাল মিডিয়া প্রেমীদের কাছে একটি বহুল পরিচিত নাম, অ্যাপের মাধ্যমে রঙ বেরঙ্গের বিভিন্ন তামাশায় যুক্ত বিভিন্ন মানুষ বিশেষত নেটিজেনরা। অনেক ছেলে এই অ্যাপে মেয়ে সেজে অভিনয় বিভিন্ন ভাব ভঙ্গি চালিয়ে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত। তেমনি এক ঘটনা ঘটেছে এই টিকটক অ্যাপ ব্যবহারকে কেন্দ্র করে।

গত ৬ আগস্ট দেশের সিক্যুরিটি ইস্যু দেখিয়ে টিকটক বন্ধ করে দেয় ভারত সরকার। তারপর থেকে ডিপ্রেশনে আছেন অনেক টিকটক সেলিব্রিটি। এমনই এক কান্ড কেরলে। বন্ধের প্রায় আড়াইমাস পর নিজের ঘর থেকে বেরোলো এই ছেলেটি। টিকটকে ১ লাখ ফলোয়ার হারিয়ে রীতিমত ডিপ্রেশনে ভুগছিলো এই ছেলেটা।

কেরলের একটি গ্রামে বন্ধুরা ইয়ার্কি মেরে দাবী করে সেই ছেলেটি দিনদিন মেয়ে হয়ে যাচ্ছে, যে কিনা প্রতিদিন মেয়ে সেজে টিকটিকে ভিডিও বানায়, ডাবিং করে। তাঁদের দাবী আজ তারা প্রমাণ্ন চায়। ফলে কার্যত নুনু এখাতে বাধ্য করে তারা। পরে আশ্বস্ত হয় , না, তাঁদের বন্ধু ঠিকই আছে।

এই টিকটক হলো একটি সঙ্গীত ভিডিও প্ল্যাটফর্ম এবং সামাজিক নেটওয়ার্ক যা সেপ্টেম্বর ২০১৬ সালে চালু করা হয়েছিল টিক টকের প্রতিষ্ঠাতা ঝাং ইয়েমিং। বর্তমানে এটি এশিয়ার নেতৃস্থানীয় ছোট ভিডিও প্ল্যাটফর্ম এবং বিশ্বব্যাপী সবচেয়ে বড় সঙ্গীত ভিডিও সম্প্রদায় হিসেবে এটি বিশ্বের দ্রুততম ক্রমবর্ধমান অ্যাপ্লিকেশন হিসাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছে।

অ্যাপটি ২০১৮ সালের জুন মাসে ১৫০ মিলিয়ন সক্রিয় ব্যবহারকারীর মাইলফকে (৫০০ মিলিয়ন মাসিক সক্রিয় ব্যবহারকারী) পৌঁছেছে, এবং ২০১৯ সালের প্রথম ত্রৈমাসিকে বিশ্বের সবচেয়ে বেশী ডাউনলোড করা অ্যাপ্লিকেশন ছিল, আনুমানিক ৪৫.৮ মিলিয়ন ডাউনলোডের হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *