মদ খেলে শিখতে পারবেন ইংরেজি, হবেন দক্ষ-বলছে গবেষনা

জার্মান শিক্ষার্থীদের ওপর গবেষণা শেষে একথা জানিয়েছেন ব্রিটিশ গবেষকরা। সম্প্রতি ‘জার্নাল অব সাইকোফার্মাকোলোজি’তে প্রকাশিত হয়েছে গবেষণাটি।
গবেষকরা জানিয়েছেন, শুধু ইংরেজি নয়, মাতৃভাষার বাইরে দ্বিতীয় যেকোন ভাষা শেখার ক্ষেত্রেও একই কথা প্রযোজ্য। অর্থাৎ, সীমিত মাত্রায় অ্যালকোহল খেলে মাতৃভাষা ছাড়াও সাবলীলভাবে দ্বিতীয় ভাষায় কথা বলতে পারবেন যে কেউ।
সাধারণত মাতৃভাষা নয়, এমন ভাষায় কথা বলতে গেলে মানুষের মধ্যে নার্ভাসনেস বেশি কাজ করে। গবেষকরা জানান, অ্যালকোহল খেলে দ্বিতীয় ভাষা ভালো বলতে পারার কারণ হলো এটি মানুষের নার্ভাসনেস ও দ্বিধা কাটাতে সাহায্য করে।
মোট ৫০ জন জার্মান শিক্ষার্থীকে এই গবেষণায় অন্তর্ভূক্ত করা হয়। তারা সবাই নেদারল্যান্ড-জার্মানী সীমান্ত সংলগ্ন মাসট্রিক্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী এবং সবাই মাত্র ইংরেজি শিখতে শুরু করেছেন।
এই ৫০ জনকে সমান দুইভাগে ভাগ করা হয়। ইংরেজি বলার একটি পরীক্ষা নেওয়ার আগে অর্ধেক শিক্ষার্থীকে সীমিত মাত্রায় অ্যালকোহল খাওয়ানো হয়। বাকিদের পানি খাওয়ানো হয়।
পরে উভয় গ্রুপের অডিও রেকর্ড গবেষণার সঙ্গে যুক্ত নন এমন শিক্ষকদের পরীক্ষা করতে বলা হয়। শিক্ষকদের কেউই অ্যালকোহল খাওয়ানোর কথা জানতেন না।
ফলাফলে দেখা যায়, অ্যালকোহল খাওয়ানো হয়েছে এমন শিক্ষার্থীরা অন্য গ্রুপের তুলনায় অনেক বেশি নম্বর পেয়েছে।

অবশ্য অ্যালকোহল খাওয়ানো হয়েছে এমন শিক্ষার্থীদের কাছে ফলাফল প্রকাশের আগে জানতে চাওয়া হয়, তারা কেমন পরীক্ষা দিয়েছে। উত্তরে তাদের বেশিরভাগই পরীক্ষা ভালো হয়নি বলে জানায়।
তবে, মনে রাখতে হবে, অ্যালকোহলের কারণে মস্তিষ্ক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। বিশেষত স্মৃতি ও মনোযোগকে ক্ষতিগ্রস্ত করে এটি। বাড়িয়ে দেয় অতি-আত্মবিশ্বাস, যা বিপদ ডেকে আনতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *