“করোনা ভাইরাসের সাথে কথা বলে ইন্টারভিউ নিয়েছেন যে হুজুর”-দেখুন ভিডিও

মহামারী আকার ধারণ করেছে করোনা। সেই করোনা নিয়ে অপ্রীতিকর মন্তব্য আর তাতেই ক্ষিপ্ত সকলে। মুফতির দাবী, করোনা আসলে ধবংস করতে এসেছে আল্লাহর নির্দেশে। চীনের কোথাও আয়েশা নামের এক মহিলা নাকি ধর্ষণ হন, এবং তার চিৎকারে মুখ সেলাই করে দেয়া হয়।

➲ শায়খুল হাদিস হাফেয মুফতি কাজী মুহাম্মাদ ইব্‌রাহীম
বাংলাদেশের অতি সুপরিচিত একজন ইসলামিক ব্যক্তিত্ব ।
➲ তিনি নরসিংদী জামেয়া কাসেমিয়া মাদ্রাসার প্রধান মুহাদ্দিস (হাদিস শিক্ষক) ।
➲ মা-শা-আল্লাহ আল্লাহর বিশেষ রহমত তার উপর,
তিনি পবিত্র কূরআনের হা’ফেয হয়েছেন মাত্র ৩৬ দিনে,
যা অবশ্যই এক বিস্ময়কর ঘটনা,
এবং আল্লাহর বিশেষ ‘রহমতে’ তিনি ”হিফয” করেছেন।

Loading...

➲ মুফতি কাজী ইব্‌রাহীমের জন্ম লক্ষীপুর জেলায় এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে,
তার পিতাও ছিলেন একজন দেশবরেণ্য প্রখ্যাত আ’লেমে দ্বীন ।

ঠিক এমনটাই দাবী করা হয়েছে তার ফেসবুক প্রোফাইলে; তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি খিল্লি ও আঁতেল মৌলবী নামে পরিচিত। তার মনগড়া বক্তব্য ইসলামকে অনেকবার ছোটো করেছে; সম্প্রতি তার দাবী তিনি নাকি করোনা ভাইরাসের সাক্ষাতকার নিয়েছেন। যা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াজুড়ে তোলপাড়। সকলে কমেন্টে তাকে গালাগাল দিয়ে চলেছেন।

মহামারী আকার ধারণ করেছে করোনা। সেই করোনা নিয়ে অপ্রীতিকর মন্তব্য আর তাতেই ক্ষিপ্ত সকলে। মুফতির দাবী, করোনা আসলে ধবংস করতে এসেছে আল্লাহর নির্দেশে। চীনের কোথাও আয়েশা নামের এক মহিলা নাকি ধর্ষণ হন, এবং তার চিৎকারে মুখ সেলাই করে দেয়া হয়।

তাই আল্লাহ নাকি করোনাকে পাঠিয়েছেন পৃথিবীর ১২০ কোটি লোক মারতে; আর এসব কথা নাকি স্বয়ং করোনা বলেছেন তাকে, ইন্টারভিউতে। আর মধ্যস্থতা করেছেন মামুন নাকে কেউ। তিনি এটাও বলেছেন করোনা নিজের মুখে স্বীকার করেছে সে বাংলাদেশের ক্ষতি করবে না।

একজন লোক ভাইরাসের সাথে কিভাবে কথা বলতে পারে? তাই নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় হাসিঠাট্টা, কেউ কেউ তাকে গালাগাল দিতেও পিছুপা হন নি। তাঁদের মতে তিনি নাকি ইসলামের শত্রু। আসুন দেখে নিন সেই ভিডিও।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *