করোনার দূর্দিনে প্রায় ৫০০ পরিবারকে চাল ডাল দিলেন ‘হিরো’ আলম, কূর্ণিশ জানাচ্ছেন সকলে

করোনাভাইরাসের এই সঙ্কটকালে বগুড়ার জেলার হতদরিদ্রদের মাঝে নিজের সামর্থ্যের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করছেন ফেইসবুকের কল্যাণে রাতারাতি আলোচনায় উঠে আসা মডেল ও অভিনেতা হিরো আলম।  তিনি উদ্যোগে ৫০০ পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন।

রবিবার (২৯ মার্চ) বিকেলে হিরো আলম তার গ্রামের বাড়ি বগুড়া সদরের এরুলিয়ায় তিনদিন ধরে বগুড়ার নন্দীগ্রাম, কাহালু, শেরপুর অসহায় মানুষদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন। এর আগে তিনি বগুড়ার কাহালু, নন্দীগ্রাম ও শেরপুর উপজেলায় গরীব মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন। খাদ্য সামগ্রীর মধ্য রয়েছে পাঁচ কেজি চাল, আটা, মসুর ডাল, সয়াবিন তৈল এবং লবণ।

চলচ্চিত্রের অভিনয়শিল্পীদের মধ্যে এর আগে অনন্ত জলিল, অপু বিশ্বাসসহ গুটিকয়েক অভিনয়শিল্পী ছাড়া আর কোনো শিল্পীকেই ত্রাণ বিতরণ করতে দেখা যায়নি। বলিউডের অভিনয়শিল্পীদের ভারতের ত্রাণ তহবিলে অর্থ সহায়তার খবর মিললেও বাংলাদেশের শিল্পীদের মাঝে এ ধরনের কোনো উদ্যোগ দেখা যায়নি; প্রশ্নও উঠেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

হিরো আলম বলেন, “দেশের এই দুর্দিনে আমার সামর্থ্যের মধ্যে যতটুকু সম্ভব দরিদ্র মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করছি। বিত্তবান অভিনয়শিল্পীদেরও নিজ নিজ এলাকার হতদরিদ্রদের পাশে থাকা উচিত।” তিনি বলেন ” নির্বাচনে হেরে গেলেও এম।পি হতে জয়ী হতে হয় না,মানুষ সেবা এভাবেও করা যায়”

হিরো আলম নামে পরিচিতি পেলেও তার আসল নাম আশরাফুল আলম। পেশায় তিনি একজন কেবল অপারেটর ছিলেন। ২০১৬ সালে একটি মিউজিক ভিডিওতে কাজ করে ট্রলের শিকার হন ফেইসবুকে। সেই সঙ্গে আলাদাভাবে পরিচিতিও পান দর্শকমহলে। একের পর এক স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে ডাক পেতে থাকেন তিনি। ‘মার ছক্কা’ নামে একটি চলচ্চিত্রেও দেখা গেছে তাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *