শুধুমাত্র বিছানায় শুয়ে থাকার জন্য মাসে ১৩ লক্ষ দিচ্ছে নাসা, জানুন

নাসায় (দ্য ন্যাশনাল অ্যারিওনেটিকস অ্যান্ড স্পেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন) স্বেচ্ছাসেবক পদে প্রার্থী নেওয়ার বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছে ৷ কর্মীদের মাসিক বেতন ১৩ লক্ষ টাকা ৷ মোট ৬০ দিনের কাজের জন্য পাওয়া যাবে এই টাকা ৷ কাজ শুধু বিছানা পেতে শুয়ে থাকা ৷

নাসার পক্ষ থেকে একটি বিজ্ঞাপনে জানানো হয়েছে চাকরির শর্ত হিসাবে বলা হয়েছে চাকরির মাঝপথে চাকরি ছাড়ার কথা বলা চলবেনা সঙ্গে বলা হয়েচে এই চাকরির ৬০ দিন শুয়ে থাকতে হবে ৷

Loading...

দেওয়া হবে একটি বিশেষ ধরনের বিছানা, থাকবে টিভির ব্যবস্থাও ৷ যে পদে আবেদকেরা আবেদন করছেন সেখান থেকে কর্মী বেছে নেওয়ার পরে তাঁর জন্য একটি বিশেষ বিছানার ব্যবস্থা করতে হবে ৷ যেহেতু ৬০ দিন শুয়ে তাকার কাজ তাই টেলিভিশন ও ইন্টারনেট পরিষেবাও থাকছে তাঁদের জন্য ৷ প্রতীকী ছবি ৷

চাকরি করার সময়ে জীবনের সব গুরুত্বপূর্ণ কাজ বিছানাতেই করতে হবে ৷ টয়লেট ও স্নান বিছানাতেই করতে হবে ৷ জানা গিয়েছে মহাকাশযাত্রায় যাত্রীদের শারীরিক স্থিতি উপরে কৃত্রিম মাধ্যাকর্ষণের প্রভাব হয়ে থাকে ৷ এই কাজে ইউরোপের একটি সংস্থা বিশেষ ভাবে কাজ করবে বলেই জানা গিয়েছে ৷ 

একটি বিভাগে যাঁরা তাকবেন তাঁরা শুধুই শুয়ে থাকবেন আর অন বিভাগে যাঁরা থাকবেন তাঁরা ঘুরতে থাকবেন ৷ এর থেকে ই বুঝতে পারা যাবে যাঁরা মহাকাশ যানে যাত্রা করে থাকেন তাঁদের একটা লম্বা সময় পর্যন্ত বসে থাকতে হয় ৷ সেই এক নাগারে বসে, শুয়ে বা ঘোরাফেরা করার সময়ে পেশীর অবস্থান কেমন থাকে ? জানা যাবে সেই বিষয়েও ৷

নাসা সূত্রে জানা গিয়েছে আপাতত ১২জনকে নেওয়া হবে ৷ তবে মোট ২৪ জনের পরীক্ষা নেওয়া হবে ৷ তার মধ্যে থেকে ১২জনকে বেছে নেওয়া হবে ৷ জার্মানিতে অবস্থিত গবেষণা কেন্দ্রে চলবে এই প্রক্রিয়া ৷

নাসা একটি মহাকাশ গবেষণাকেন্দ্র বলেই সারা পৃথিবী জুড়ে পরিচিত ৷ তবে নাসার গঠন দ্য ন্যাশনাল অ্যারিওনেটিকস অ্যান্ড স্পেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের অন্তর্গত জুলাই ১৯ জুলাই ১৯৪৮ সালে এর পূর্বাধিকারী সংস্থা ন্যাশনাল অ্যাডবাইজারি কমিটি ফর এরোনটিক্স এর স্থানে করা হয়েছে ৷ এই সংস্থা ১ অক্টোবর ১৯৪৮ সাল থেকে ক্রমাগত কাজ করছে ৷

বর্তমানে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনকে সমর্থন বহু পারস্পরিক কর্মীদল যানবাহন নির্মাণের ও বিকাশের ক্ষেত্রে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে ৷ বিভিন্ন ভাবে পরীক্ষা নিরীক্ষার মাধ্যমে স্থিত হচ্ছে বিভিন্ন বিষয় 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *