৭৮ বছরের পাত্র, ১৭ পাত্রী, এক মাসের মধ্যে বিয়ে ভাঙলো প্রেগন্যান্ট স্ত্রীর সাথে-দাবি ভার্জিন নয় মেয়ে

পাত্র ৭৮ বছরের বৃদ্ধ।  পাত্রী ১৭ বছরের কিশোরী। বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন তাঁরা।  তার মাস ঘোরার আগেই বিবাহ বিচ্ছেদের পথে দম্পতি। ঘটনাটি ঘটেছিলো ইন্দোনেশিয়ায়। সেই বিয়ে টিকলো না সংসারে ভাঙ্গন। কি হিয়েছিলো আসুন জেনে নিন আসল কাহিনী। স্ত্রী ননী নবিতা, স্বামী আবাহ।

একমাস আগে ননি নবীতাকে বিয়ে করেন এই ৭৮ বছরের বৃদ্ধ, যা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় সোরগোল পড়ে যায়। ইন্দোনেশিয়ার জাভার সুবাং এলাকায় হয় এই বাল্যবিবাহ। এই নিয়ে কম জল ঘোলা হাসি ঠাট্টা হয়নি। কিন্তু বিয়ের ২২ দিনের মাথায় আইনি নোটিশ পেয়ে কেঁপে ওঠে ননীর পরিবার।

ননীর বোন জানান “খবর পেয়ে ভেঙে পড়েছে তার বড়ো বোন” ট্রাক ভর্তি পণ, অনেক আসবাব নিয়ে বিয়ে করেন আবাহ। কিন্তু নোটিশে তিনি জানাচ্ছেন আগে থেকে প্রেগন্যান্ট ছিলো তার স্ত্রী এমনকি সতীত্ব নিয়েয় প্রশ্ন করেছেন আবাহ। তাই আইনি নোটিশ ধরিয়ে ২২ দিনের মধ্যেই সব শেষ করে দিলেন তিনি।

ননীর পরিবারের দাবী, বিয়ের প্রস্তাব আসে আবাহ পরিবারের পক্ষ থেকেই। তবে কেন এমন হলো তাতে তারা অবাক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *