যেদেশে ভার্জিন মেয়ের বিয়ে হয় না, নিজের হাতে কাজ সারলে লি ঙ্গচ্ছেদ-জানুন

‘সেক্স’ শব্দটি নিয়ে সারা পৃথিবীতেই তোলপাড়। কত বিতর্ক, আলাপ-আলোচনা, সাহিত্য-সঙ্গীত রচনা এই শব্দকে ঘিরে। এই সবকিছুর পাশাপাশি রয়েছে দেশে দেশে রয়েছে সেক্স-সংক্রান্ত নানা আইন। একদেশে যেটা বৈধ, অন্য দেশে আবার অবৈধ। আসুন জেনে নিই এমন কিছু বিচিত্র যৌন আইন সম্পর্কে-

নিউ জার্সিতে গাড়ির মধ্যে সেক্স করার সময়ে যদি ভুল করে বেজে যায় হর্ণ, তবে ধরে নিয়ে যাবে পুলিশ। ওয়াশিংটন ডিসি-তে একমাত্র ‘মিশনারি’ পজিশনই বৈধ সেক্স-পজিশন হিসেবে গণ্য হয়। যদিও কে করে এসব আইনের তোয়াক্কা!

ইন্দোনেশিয়ায় আত্মরতি মারাত্মক অপরাধ। ধরা পড়লে যৌনাঙ্গ কেটে নেওয়া হয়।মার্কিন স্টেট মিনেসোটার আলেকজান্দ্রিয়াতে মুখে রসুন-পিঁয়াজ বা সার্ডিন মাছের গন্ধ নিয়ে স্ত্রীকে চুমু খেতে পারেন না স্বামী। লেবাননে পশুর সঙ্গে সেক্স করা আইনসম্মত। তবে তা শুধুমাত্র পুরুষের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য এবং সেক্স করা যাবে শুধুমাত্র মেয়ে পশুদের সঙ্গেই।

কলম্বিয়ার ‘কালি’-তে বিয়ের রাতে মেয়ের যৌনমিলন স্বচক্ষে দেখতে হয় মা-কে। সেখানে এটাই নাকি রীতি! হাঙ্গেরির বুদাপেস্টে আলো জ্বালিয়ে সেক্স করা মানা। এমনকী, স্বামী-স্ত্রীও এই আইন লঙ্ঘন করতে পারেন না।

প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপ গুয়াম-এ কুমারী মেয়েদের বিয়ে হয় না। আর এ সুযোগে মেয়েদের কুমারিত্ব হরণকে পেশা করে ফেলেছেন সে দেশের বহু পুরুষ। বিয়ে না হওয়ার ভয়ে রীতিমতো টাকা দিয়ে নিজেদের কুমারিত্ব ভাঙেন সে দেশের মেয়েরা।
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আইওয়া-তে কোনও পুরুষের গোঁফ থাকলে সর্বসমক্ষে কোনও নারীকে চুমু খাওয়া অবৈধ বলে বিবেচিত হয়।

ম্যাসাচুসেট্স-এ যৌনক্রিয়ার সময় মেয়েরা উপরে থাকা অবৈধ। ফ্লোরিডাতে স্ত্রীর বক্ষে চুমু খাওয়া মানা। মার্কিন স্টেট ওরেগন-এ সেক্স করার সময়ে ‘ডার্টি টক’ অবৈধ ।

তথ্যসূত্রঃ bd24live.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *