“সেলফি তুললেই ৬ মাসের জেল”

মানুষের জীবনে বর্তমানে সেলফি একটা সংক্রামক ব্যাধির মত ছড়িয়ে পড়েছে। এটার জন্য বহু মানুষকে বহু ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয়েছে, অনেকে অসাবধানতাবশত অনেক দূর্ঘটনার শিকারও হয়েছেন। মোটকথা সেলফি একটি সংক্রামক ব্যধি হয়ে দাঁড়িয়েছে। স্মার্টফোনের যুগে হাতে ফোন পাওয়া মাত্রই সবাই সেলফিতে মগ্ন।

সেলফি হালের তরুন তরুণীদের মধ্যে একটা ট্রেন্ড হয়ে দাঁড়িয়েছে। পৃথিবীটাই এখন সেলফি রোগে ভূগছে। সেলফির ব্যপকতায় কখনও কখনও মানবিক মূল্যবোধ ও সুষ্ঠ চিন্তাধারার বিলোপ পাচ্ছে। অনেকে লাশের সামনে দাঁড়িয়ে সেলফি তুলছে কেউ সেলফি তুলতে দূর্ঘটনার শিকার হচ্ছে।

এমন ঘটনা অহরহ ঘটছে দুনিয়া জুড়ে যার কারণে এই সেলফির বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিচ্ছে সংযুক্ত আমির শাহি। দেশটিতে সেলফি তুললেই জেল জরিমানার আইন চালু করতে চলেছে সে দেশের সরকার।

খালিজ টাইমসের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে কারও অসম্মতিতে বা কাউকে না জানিয়ে তাঁকে সমত সেলফি বা তাঁর ব্যক্তিগত সম্পত্তির সাথে সেলফি তুললে সে আইনি ব্যবস্থা নিতে পারে। অপরাধের মাত্রা অনুযায়ী জরিমানা দিতে হবে তাকে। সেক্ষেত্রে জরিমানা প্রায় পাচ লাজ দিরহাম যা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় এক কোটির কাছাকাছি।

আরব আমিরশাহির আইন বছছে সেলফি তুললে সমস্যা নেই, কিন্তু সেই সেলফিতে কোনো অপরিচিত ব্যক্তি কারো ছবি বা ব্যক্তিগত ব্যপার থাকলে সে মানহানির মামলা করতে পারে সেই ব্যক্তির বিরুদ্ধে; সে ক্ষেত্রে এটি গোপনীয়তা লংঘনের মামলা হবে। এক্ষেত্রে জরিমানা এবং অনাদায়ে ছ মাসের জেল হতে পারে।

এই আইন প্রনয়নের পক্ষে যুক্তি তুলে ধরেছেন সেদেশের এক আইনজীবী। তিনি জানান কদিন ধরে বিয়ে বাড়িতে ছবি তোলা বা অনৈতিক ছবি তোলা নিয়ে প্রচুর মামলা হচ্ছে তাঁর জন্যেই সে দেশের সরকারের এমন সিদ্ধান্ত। এ ব্যপারে আপনার কি মতামত জানান আমাদে কমেন্টে। সাথে থাকুন…

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *